বিশ্বাসের জোরে দোকানি ছাড়াই চলছে বেচাকেনা, আজও মানবতা বেঁচে আছে



Odd বাংলা ডেস্ক: দোকান রয়েছে। দোকানে জিনিসপত্রও রয়েছে। কিন্তু দোকানি নেই। এভাবেই চলছে মিজোরামের বেশ কয়েকটি দোকান। করোনা আতঙ্কে কারণে যে এই পরিস্থিতি তা নয়। বহুদিন ধরে এভাবেই চলছে মিজোরামের এই দোকানগুলি। সম্প্রতি এর একটি ছবি ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। আর এরপর থেকেই সরগরম ভার্চুয়াল দুনিয়া। মিজোরামের এই দোকানগুলি সেলিংয়ের হাইওয়ের ধারে অবস্থিত। দোকানে পসরা সাজিয়ে প্রতিদিন অন্যত্র চলে যান এই সব দোকানের মালিকরা। দোকানের মধ্যেই রাখা রয়েছে একটি ডিপোজিট বক্স। দোকান থেকে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র আপনাকেই তুলে নিতে হবে। আর তারপর তার দাম রেখে দিতে হবে ওই বাক্সে। বছরের পর বছর ধরে এই নিয়মই চলে আসছে এই দোকানগুলিতে। এটাই এখানকার ঐতিহ্য। বিশ্বাসের উপরেই চলে ব্যবসা। আজ পর্যন্ত খুব কমই হয়েছে যে কেউ দাম না দিয়ে চলে গিয়েছে। এমনই একটি দোকানের ছবি সম্প্রতি ‘মাই হেম ইন্ডিয়া’ নামে একটি প্রোফাইল থেকে টুইটারে শেয়ার করা হয়। সেখানেই মিজোরামের এই দোকানের খবর উঠে আসে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে খুব দ্রুত ছবিটি ছড়িয়ে পড়ে। ভাইরাল হতেও খুব বেশি সময় লাগেনি। ছবিটি দেখার পরে সোশ্যাল সাইটে বিভিন্ন জন ভিন্ন ভিন্ন মত দিয়েছেন। অনেকে বলেছেন, বিশ্বাসের চেয়ে বড় কিছু এই পৃথিবীতে নেই, মিজোরামের এই দোকানগুলিই তার প্রমাণ। কেউ আবার বলেছেন, সুইজারল্যান্ড ও জার্মানির মতো দেশে এই ধরনের দোকান দেখা যায়। কিন্তু ভারতেও যে এমন দোকান রয়েছে, তা এতদিন অজানা ছিলো।
বিশ্বাসের জোরে দোকানি ছাড়াই চলছে বেচাকেনা, আজও মানবতা বেঁচে আছে বিশ্বাসের জোরে দোকানি ছাড়াই চলছে বেচাকেনা, আজও মানবতা বেঁচে আছে Reviewed by Odd Bangla Editor on June 25, 2020 Rating: 5
Powered by Blogger.