করোনায় কাজ হারিয়ে সপরিবারে আত্মহত্যার চেষ্টা কলকাতায়



Odd বাংলা ডেস্ক: সারাবিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে ৯৭ লাখ ৩৩ হাজার একশ ৫৯ জন এবং মারা গেছে চার লাখ ৯২ হাজার দু'শ ৪৪ জন। তার মধ্যে ভারতে আক্রান্ত হয়েছে চার লাখ ৯১ হাজার নয়শ ৯২ জন এবং মারা গেছে ১৫ হাজার তিনশ ১৯ জন। করোনায় ক্ষতিগ্রস্থ দেশের তালিকায় ভারত এখন চার নম্বরে অবস্থান করছে। করোনা ছড়িয়ে যাওয়ার জেরে কাজ হারিয়ে চরম বেকায়দায় পড়ে বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে একই পরিবারের তিন সদস্য। কলকাতার রিজেন্ট পার্ক এলাকার এ ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছে বাঘাযতীন স্টেট জেনারেল হাসপাতালে। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জানতে পেরেছে, আর্থিক সঙ্কটের কারণে তারা বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে। লকডাউনের পর আরো বেশি আর্থিক সমস্যায় পড়েছিল তারা। রিজেন্ট পার্ক থানা এলাকার সোনালি পার্ক আবাসনে থাকতো ওই পরিবার। আজ শুক্রবার সকালে তারা আত্মহত্যার চেষ্টা করে। সকাল সাড়ে ১০টায় অচেতন অবস্থায় তাদের ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

প্রতিবেশীদের দাবি, তারা আর্থিক সমস্যায় ভুগছিল দীর্ঘদিন ধরে। মায়ের বয়স ৬৭ বছর এবং অন্য দু’জন তার ছেলে। দীর্ঘ দিন ধরে পরিচারিকার কাজ করতেন ওই নারী। করোনাভাইরাস ছড়িয়ে যাওয়ারা জেরে লকডাউন দিলে ধীরে ধীরে সব জায়গা থেকেই কাজ চলে যেতে থাকে তার। আর বড় ছেলের বয়স ৪২ বছর। তিনি আদালতে এক আইনজীবীর অধীনে কাজ করেন। লকডাউনের জন্য আদালত বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর তার কাজও থেমে যায়। ছোট ছেলের বয়স ৩৫ বছর। তবে তিনি ছোটবেলা থেকেই শারীরিকভাবে অসুস্থ। সে কারণে ঘরেই থাকতেন। লকডাউনের সময় মায়ের উপার্জনেই সংসার চলত। কিন্তু ধীরে ধীরে সেই কাজ কমতে থাকলে টাকার অভাবে আরও সমস্যায় পড়ে ওই পরিবার। ফলে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে ওই পরিবার। তবে পুরো বিষয়টি স্পষ্ট নয়। রিজেন্ট পার্ক থানার পুলিশ সব দিক খতিয়ে দেখছে।
করোনায় কাজ হারিয়ে সপরিবারে আত্মহত্যার চেষ্টা কলকাতায় করোনায় কাজ হারিয়ে সপরিবারে আত্মহত্যার চেষ্টা কলকাতায় Reviewed by Odd Bangla Editor on June 27, 2020 Rating: 5
Powered by Blogger.