মহিলারা ব্লাউজ পড়তে পারবেন না এই গ্রাম! রয়েছে এ দেশেই..

Odd বাংলা ডেস্ক: ব্লাউজের মহিমা অপার। শাড়ির সৌন্দর্য্যকে আরও বাড়িয়ে তুলতে এর জুড়ি নেই। শাড়ি যতই সিম্পল হোক না কেন, হালফিলে ব্লাউজকে আরও জাঁকজমক করতে বুটিকের বাইরে পড়ে লম্বা লাইন। কিন্তু এমনও জায়গা রয়েছে যেখানে মহিলারা ব্লাউজের ধার ধারেন না।

তাও আবার বছরের পর বছর। কিন্তু এমনটাই চলে আসছে সেখানে। ছত্তিশগড়ের আদিবাসী এলাকায় কর্মরত মহিলারা শাড়ির সঙ্গে ব্লাউজ পরে না বলেই শোনা যায়। এই পরম্পরা অনুযায়ী মহিলারা ব্লাউজ পরার অনুমতি পাননা।

তারা নিজেরাও পরেন না, গ্রামের অন্য কোনও মহিলাকেও পরতে দেন না। কিন্তু পরিবরত্ন তো আসেই। আর সেই নিয়ম ধরেই একদল মেয়ে নাকি ব্লাউজ পরা শুরু করেছে। আর তাতেই গ্রামের পরম্পরাকে অসম্মানের অভিযোগ উঠেছে তাদের বিরুদ্ধে।

আজও এই পরম্পরাকে অনেকেই ধরে রাখতে চান। প্রায় এক হাজার পুরনো এই রীতিকে সম্মান জানাতেই অভ্যস্ত গ্রামের প্রবীণারা। অনেকের মতে, ব্লাউজ না পরার ফলে কাজের সময়ও বেশ সুবিধা হয়। ক্বিশেষ করে ক্ষেতে কাজ করতে গিয়ে সুবিধাটা টের পান এই মহিলারা।

আবার গরমের সময়েও এই ব্লাউজ না পরার ফলে কিছুটা স্বস্তি পাওয়া যায়। ইদানিং শহরেও ব্লাউজ ছাড়া শাড়ি পরে ফটোশ্যুট বলুন বা মডেলিং, চল চোখে পড়ছে হামেশাই। আর এই স্টাইল প্রশংসিতও হচ্ছে। তাই সবদিক দিয়েই যেখানে সুবিধা তখন কেনইবা এই মহিলারা ব্লাউজের দিকে যাবেন।

মহিলারা ব্লাউজ পড়তে পারবেন না এই গ্রাম! রয়েছে এ দেশেই.. মহিলারা ব্লাউজ পড়তে পারবেন না এই গ্রাম! রয়েছে এ দেশেই.. Reviewed by Odd Author on মার্চ ২৪, ২০২১ Rating: 5
Blogger দ্বারা পরিচালিত.