ঋষির মৃত্যুর সঙ্গে ম্লান পাকিস্তানের 'কাপুর হাভেলি', রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে ধুলোয় মিশছে ঐতিহ্য


ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায়, Odd বাংলা: অনেকেই জানেন না, যে সদ্য প্রয়াত বলিউড অভিনেতা ঋষি কাপুরের পৈতৃক বাড়ি 'কাপুর হাভেলি' নামে পরিচিত, যা পাকিস্তানে অবস্থিত। পাকিস্তান সরকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল যে, ঐতিহ্যমণ্ডিত ওই বাসভবনটি মিউজিয়ামে পরিণত করা হবে। কিন্তু পাক সরকার জানিয়েছে, পর্যাপ্ত অর্থের অভাবে এই মুহূর্তে সেটিকে আর জাদুঘরে পরিণত করা সম্ভব নয়! 

পাকিস্তান সরকারের কাছে ঋষি কাপুর অনুরোধ করেছিলেন যে, খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের অন্তর্গত পেশোয়ারের কিস্সা খোয়ানি বাজারে অবস্থিত 'কাপুর হাভেলি'-কে জাদুঘরে পরিণত করা হোক। তাঁর অনুরোধ মেনে ২০১৮ সালে পাক বিদেশমন্ত্রী শাহ মহম্মদ কুরেশি তাঁকে আশ্বস্ত করেছিলেন যে, পাকিস্তান সরকার 'কাপুর হাভেলি'-কে জাদুঘরে পরিণত করবে। 

সেসময়ে ঋষি কাপুরকে দেওয়া কথা মতো ২০১৮ সালে ইমরান খানের তেহরিক-ই-ইনসাফ দলের ক্ষমতায় আসার পরই ফেডারেল মন্ত্রী শাহেরিয়ার আফ্রিদি প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন যে 'কাপুর হাভেলি'কে জাদুঘরের মর্যাদা দেওয়া হবে। কিন্তু এরপর কেটে গিয়েছে প্রায় ২ বছর। সেই প্রতিশ্রুতি প্রতিশ্রুতি হয়েই থেকে গিয়েছে। অর্থের অভাবে তার আর বাস্তবে রূপায়ণ করা হয়নি। গত ২৯ এপ্রিল শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন বলিউড সুপারস্টার ঋষি কাপুর। বেঁচে থাকতে ঋষি কিন্তু একাধিকবার গিয়েছিলেন তাঁর পিতৃপুরুষের ভিটেতে। তাঁরা বরাবরই সেখানকার মানুষদের কাছ থেকে উষ্ণ অভ্যর্থনা পেয়েছেন, সেই ছবিও তিনি শেয়ার করেছিলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়।
বর্তমানে বাড়িটি একটি ব্যক্তিগত মালিকানার অধীনে রয়েছে। শোনা যায় ওই ব্যক্তি একাধিকবার বাড়িটি ভেঙে ফেলার চেষ্টা করেছেন। কিন্তু তার চেষ্টা সফল হয়নি, কারণ খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের হেরিটেজ ডিপার্টমেন্ট তার ওপর একাধিকবার এই এফআইআর দায়ের করেছে। তবে ঘন ঘন বৃষ্টিপাত, শিলাবৃষ্টি এবং ভূমিকম্পের কারণে বাড়িটির ভেতরের অবস্থার অবণতি হয়েছে। আজ সেই ঐতিহ্য একটু একটু করে ধ্বংসের মুখে। 

'কাপুর হাভেলি' তৈরি করেছিলেন ঋষি কাপুরের ঠাকুরদা বলিউড আইকন পৃথ্বীরাজ কাপুরের বাবা বশেশ্বরনাথ কাপুর। ঋষি কাপুরের পূর্ব পুরুষ পাকিস্তানের। ১৯৪৭ সালে দেশভাগের পর তাঁরা এদেশে চলে আসেন। ঋষি কাপুরের মৃত্যুতে শোকগ্রস্ত হয়েছেন পেশোয়ারের মানুষও। ঋষি কাপুরের মৃত্যুর পর তাঁকে শ্রদ্ধা জানাতে 'কাপুর হাভেলি'-তে এসেছিলেন অসংখ্য পেশোয়ারবাসী। কাপুর পরিবারের ঐতিহ্য মাথায় নিয়ে অবহেলায় অযত্নে আজও মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছে  'কাপুর হাভেলি'।
ঋষির মৃত্যুর সঙ্গে ম্লান পাকিস্তানের 'কাপুর হাভেলি', রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে ধুলোয় মিশছে ঐতিহ্য ঋষির মৃত্যুর সঙ্গে ম্লান পাকিস্তানের 'কাপুর হাভেলি', রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে ধুলোয় মিশছে ঐতিহ্য Reviewed by Odd Creator on May 07, 2020 Rating: 5
Powered by Blogger.