ইসলামের আবহে হিন্দুত্বের জয়, পাক রাজধানীতে তৈরি হচ্ছে কৃষ্ণ মন্দির


Odd বাংলা ডেস্ক: পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদে বসকারী হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ধর্মীয় আচার-অনুষ্ঠানের জন্য এতদিন শহরের বাইরে ভ্রমণ করতে হত। আর এবার সেখানকার হিন্দুরা শীঘ্রই পেতে চলেছেন মন্দির ও শ্মশানঘাট। ইসলামাবাদের এইচ-৯ সেক্টর এলাকায় প্রায় ২০ হাজার বর্গফুট এলাকাজুড়ে একটি শ্রীকৃষ্ণের মন্দির স্থাপনা করা হবে। ইসলামাবাদের হিন্দু পঞ্চায়েতের তরফে মন্দিরটির নামকরণ করা হয়েছে শ্রীকৃষ্ণ মন্দির। 


ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রী পীর নুরুল হক কাদরি জানিয়েছেন, মন্দির নির্মাণের যাবতীয় খরচ সরকার বহন করবে। মন্দিরটি তৈরিতে আনুমানিক ১০ কোটি টাকা ব্যয় করা হবে বলে জানা গিয়েছে। মঙ্গলবার মানবাধিকার বিষয়ক সংসদীয় সচিব লাল চাঁদ মালহি মন্দিরটির ভিত্তি প্রস্তর অনুষ্ঠান করেছিলেন। শিল্যান্যাস অনুষ্ঠানে আগতদের উদ্দেশে মালহি ১৯৪৭-এর আগে ইসলামাবাদে হিন্দু মন্দির কাঠামোর উপস্থিতির কথা বলেন, যদিও সেগুলির আর দেখা মেলে না। তিনি আরও বলেছিলেন, গত ২০ বছরে ইসলামাবাদে হিন্দু জনসংখ্যা যথেষ্ট বৃদ্ধি হয়েছে, তাই তাদের উপাসনার জন্য মন্দির নির্মাণের একান্ত প্রয়োজন ছিল।

তিনি বলেন, ইসলামাবাদে হিন্দু সম্প্রদায় দীর্ঘদিন ধরে একটি মন্দিরের দাবি করে আসছেন। জনসংখ্যাও বৃদ্ধি পেয়েছে এবং রাজধানীর অনেক হিন্দু মন্দিরের কাঠামো পরিত্যক্ত অবস্থায় রয়েছে। পাশাপাশি এখানে কোনও শ্মশানঘাটও নেই। মন্দিরটি যে প্লটটির উপর তৈরি হচ্ছে তা ২০১৭ সালেই সেন্ট্রাল ডেভেলপমেন্ট অথরিটির (সিডিএ) তরফে হিন্দু পঞ্চায়েতকে বরাত দেওয়া হয়েছিল। তবে, সিডিএর তরফে সাইটের মানচিত্রের অনুমোদনের মতো কিছু নিয়ম-কানুনের জন্য মন্দিরের নির্মানের কাজ সময়মতো শুরু করা যায়নি। তবে এবার তার শিল্যান্যাস হয়ে গেল আর শ্মশানঘাটটি মন্দির কমপ্লেক্সের মধ্যেই তৈরি করা হবে বলে জানা গিয়েছে। 
ইসলামের আবহে হিন্দুত্বের জয়, পাক রাজধানীতে তৈরি হচ্ছে কৃষ্ণ মন্দির ইসলামের আবহে হিন্দুত্বের জয়, পাক রাজধানীতে তৈরি হচ্ছে কৃষ্ণ মন্দির Reviewed by Odd Creator on June 25, 2020 Rating: 5
Powered by Blogger.